হাসিনা না সু চি, রোহিঙ্গা প্রশ্নে দোটানায় মোদি

 

 
একদিকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
অন্যদিকে মায়ানমারের নোবেলজয়ী নেত্রী অং সান সুচি। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে প্রতিবেশী দুই রাষ্ট্রের দুই নেত্রীর মধ্যে কাকে কতটা সমর্থন করা হবে তা নিয়ে এখন প্রবল দোটানায় পরেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ঢাকায় মায়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিয়ে কূটনৈতিক চূড়ান্তপত্র দিয়েছে শেখ হাসিনা সরকার। ঢাকার তরফে মায়ানমারকে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, পশ্চিম মায়ানমার থেকে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ বন্ধ করা না হলে ঢাকা বিষয়টি আন্তর্জাতিক স্তরে নিয়ে যাবে। সেইসঙ্গে বাংলাদেশের দাবি, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের উপরে নজরদারি চালাতে গিয়ে সীমান্তে বাংলাদেশের আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছে মায়ানমারের হেলিকপ্টার ও ড্রোন। ডোকলাম বিতর্ক মেটার পরে ব্রিকস সম্মেলনে যোগ দিতে চীনে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখান থেকে মায়ানমারে যান তিনি। রোহিঙ্গা নিয়ে মায়ানমারের অবস্থানকে সমর্থন জানিয়েছে ভারত। এমনকি ভারতে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ রুখতে বিভিন্ন রাজ্যকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। তবে পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার সেই নির্দেশ মানতে রাজি নন। কিন্তু বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি থেকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ফেরানোর কাজ (পুশব্যাক) শুরু হয়েছে। এমনকি জম্মু-কাশ্মীরে থাকা রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে মোদি সরকারের উপরে চাপ দিচ্ছে সঙ্ঘ পরিবারও। এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশও ভারতের কাছে রোহিঙ্গা শরণার্থী নিয়ে নিজেদের সমস্যার কথা জানিয়েছে। দিল্লিতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রককে নিজেদের অবস্থান জানিয়েছেন। বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ শেখ হাসিনাকে ফোন করে জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা নিয়ে ভারত বাংলাদেশের পাশে আছে। বস্তুত মায়ানমার সরকার রোহিঙ্গা জনজাতির আলাদা পরিচয়ও মানতে রাজি নয়। তাদের মতে, রোহিঙ্গারা ‘বাঙালি মুসলিম’। এই যুক্তি মেনে নিয়েছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। কিন্তু রাষ্ট্রপুঞ্জ তা মানতে রাজি নয়। তাদের তরফে জানানো হয়েছে, রোহিঙ্গাদের মায়ানমারেই আশ্রয় দিতে হবে। তাদের আলাদা জাতি পরিচয়ও মানতে হবে মায়ানমার সরকারকে। ফলে পরিস্থিতি যে অত্যন্ত জটিল তা মেনে নিচ্ছেন দিল্লির কর্তারা। কূটনীতিকদের মতে, মায়ানমারে চীনা প্রভাব ঠেকানোর জন্য সু চি সরকারের কাছাকাছি আসতে চাইছে ভারত। কিন্তু বাংলাদেশের সঙ্গেও চীনের সম্পর্ক দ্রুত বাড়ছে। মায়ানমারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হতে গিয়ে বাংলাদেশকে চীনের হাতে ঠেলে দেওয়া যুক্তিসঙ্গত হতে পারে না। ফলে ভারত এখন উভয় সঙ্কটে। সূত্র: আনন্দবাজার।
Read 174 times
Rate this item
(0 votes)
Published in রাজনীতি
Super User

Lorem ipsum dolor sit amet, consectetur adipiscing elit. Mauris hendrerit justo a massa dapibus a vehicula tellus suscipit. Maecenas non elementum diam.
Website: smartaddons.com

13 comments

  • Comment Link קוקסינליות בתל אביב Thursday, 07 December 2017 16:09 posted by קוקסינליות בתל אביב

    My spouse and I absolutely love your blog and find nearly all of your post’s to be exactly what I’m looking for. Does one offer guest writers to write content for you personally? I wouldn’t mind creating a post or elaborating on a lot of the subjects you write with regards to here. Again, awesome weblog!

  • Comment Link קוקסינליות בתל אביב Monday, 04 December 2017 12:13 posted by קוקסינליות בתל אביב

    Only a smiling visitant here to share the love (:, btw outstanding layout.

  • Comment Link דירות דיסקרטיות בחדרה Thursday, 02 November 2017 16:56 posted by דירות דיסקרטיות בחדרה

    I like this post, enjoyed this one thanks for posting. "Fear not for the future, weep not for the past." by Percy Bysshe Shelley.

  •  Start 
  •  Prev 
  •  1 
  •  2 
  •  3 
  •  4 
  •  5 
  •  Next 
  •  End 

Leave a comment

Make sure you enter the (*) required information where indicated. HTML code is not allowed.

যারা অনলাইনে আছেন

We have 609 guests and 45 members online

  • phillis3536249437519
  • plottelaklepha
  • plinjongturbzergtog
  • danielacummins0399
  • mohammedpowell6
  • keeshapape009317894
  • reiprovnumtoconksapp
  • rioglamdatipalhau
  • prodorabcetgiohua
  • bobozu13257439989
  • annie71h9623444893
  • carmonlongshore87
  • 12un7dk53r153pe
  • tyrone339340867
  • o628jpmmnqs
  • qapol6qkue6oq58
  • vlymrpf2er
  • ohejhz4kanb2us
  • mkychnhjmwgoud
  • o7mpwrnyecy90q6
  • l1gwqagynjtn4v
  • 8hfkjtuhb
  • uyiuvq4qrwz6vd
  • 5be3ayweg8g8ja

Subscribe to our newsletter

ইভেন্ট

ছবি ও ভিডিও

Style Setting

Fonts

Layouts

Direction

Template Widths

px  %

px  %