হামলার আঁচের কথা স্বীকার করে চাপে এফবিআই

আন্তর্জাতিক
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

হামলার আঁচের কথা স্বীকার করে চাপে এফবিআই


যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের পার্কল্যান্ডে হামলার বিষয়ে আগে থেকেই আভাস পাওয়ার কথা স্বীকার করে বিপাকে পড়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই)। ইঙ্গিত পেয়েও যথাযথ ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হওয়ায় চাপে পড়েছে সংস্থাটি।
গত বুধবার পার্কল্যান্ডে মার্জারি স্টোনম্যান ডগলাস স্কুলে বন্দুকধারীর হামলায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ ১৭ জন নিহত হয়। হামলার কিছুক্ষণ পরই গ্রেপ্তার করা হয় হামলাকারী কিশোর নিকোলাস ক্রুজকে। ওই সময় এফবিআই জানিয়েছিল যে তারা গত বছরেই এরকম একটি হামলার আভাস পেয়েছিল।

এ প্রসঙ্গে ফ্লোরিডার গভর্নর রিক স্কট বলেন, এজেন্সির (এফবিআই) পরিচালকের উচিত পদত্যাগ করা। এদিকে অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশন এফবিআইয়ের ব্যর্থতার ওপর একটি পর্যালোচনার আদেশ জারি করেছেন। এ ছাড়া এফবিআইয়ের কার্যকলাপে নিহতদের ঘনিষ্টরাও ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার এফবিআই এক বিবৃতিতে জানায়, গত ৫ জানুয়ারি নিকোলাস ক্রুজের খুব কাছের একজন তার অস্ত্রের মালিকানা,মানুষ হত্যা করতে চাওয়া,আপত্তিকর কার্যকলাপ, অস্বস্তিমূলক বিষয় নিয়ে মিডিয়াতে পোস্টসহ স্কুলে হামলার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে এফবিআই প্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।
এফবিআই বলছে, ‘আমাদের উচিত ছিলো সেই তথ্য মোতাবেক যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া। এর বিপরীতে আমরা প্রটোকলগুলো অনুসরণ করা থেকে বিরত থাকি।’
সংস্থাটির পরিচালক ক্রিস্টোফার রেই বলেন, ‘আমরা এখনও প্রটোকলগুলো পর্যবেক্ষণ করছি। আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, আমরা এ ঘটনার গভীরে যাবো এবং প্রতিটি তথ্য পুনরায় পর্যবেক্ষণ করা হবে।’
রেই আরও বলেন, ‘ইতিমধ্যেই হামলার শিকার প্রত্যেকের পরিবারের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। এই ভয়াবহ সহিংসতার শিকার সকলের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।’
এদিকে এফবিআইয়ের কাছে হামলার আভাস কেবল একবার এসেছে বিষয়টি এমন নয়। এর আগে গত বছর সেপ্টেম্বরে মিসিসিপির নাগরিক বেন বেনাইট নিকোলাস ক্রুজের একটি ইউটিউব ভিডিওতে নিয়ে রিপোর্ট করেন। তিনি এফবিআই প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রায় ২০ মিনিট এ নিয়ে কথা বলেছেন বলে দাবি করেন। তবে এফবিআই থেকে দেওয়া বিবৃতিতে জানানো হয়, তারা সেই আলোচনা চলাকালীন বেশ কয়েক দফা অনুসন্ধান করেও সেই ভিডিও পায়নি। মূলত ক্রুজের সেই ভিডিওতে তিনি বলেন ‘আমি একজন পেশাদার স্কুল শ্যুটার হতে যাচ্ছি।’
এদিকে শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প সহিংসতায় বেঁচে যাওয়া বাকিদের সঙ্গে দেখা করতে পার্কল্যান্ডে যান। এ সময় হাসপাতালে আহতদের সঙ্গে দেখা করেন ট্রাম্প দম্পতি। সহিংসতা চলাকালীন যারা এগিয়ে এসে বীরত্বের পরিচয় দিয়েছেন তাদের ধন্যবাদ জানান ট্রাম্প।