প্রথমবারের মতো উড়লো ‘উড়ুক্কু গাড়ি’

তথ্যপ্রযুক্তি
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

প্রথমবারের মতো উড়লো ‘উড়ুক্কু গাড়ি’

অনলাইন ডেস্ক: অ্যাপের মাধ্যমে পরিবহন সেবা নতুন নয়। সম্প্রতি আমাদের দেশেও মোবাইল অ্যাপভিত্তিক মোটরসাইকেল কিংবা গাড়িতে চড়ে গন্তব্যস্থলে যাওয়া অনেকটা সহজভাবেই নিয়েছে মানুষ। দেশি কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিদেশি প্রতিষ্ঠানও সমান তালে দিয়ে যাচ্ছে এ ধরনের পরিবহন সেবা। কিন্তু যানজটের ঝক্কি কমলো কই!

যাত্রাপথের এই জটিল সমস্যার সমাধানে সম্প্রতি নিজেদের ডিজাইন করা উড়ুক্কু গাড়ির পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন করলো বিশ্ববিখ্যাত ইউরোপীয় প্লেন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ‘এয়ারবাস’।

উড়ুক্কু গাড়ির সফল উড্ডয়ন এবারই প্রথম। মোট দু’বার ৫৩ সেকেন্ডের জন্য প্রোটোটাইপ এয়ারক্রাফট ভাহানাকে ওড়াতে সক্ষম হয় নির্মাতা এ প্রতিষ্ঠানটি।

পরীক্ষামূলক এ উড়ুক্কু গাড়িটির উড্ডয়ন করা হয় যুক্তরাষ্ট্রের অরেগনের পেন্ডলটন আনম্যানড অ্যারিয়াল সিস্টেম রেঞ্জে।

উড়ুক্কু গাড়িউড়ুক্কু গাড়িটি যেন অল্প জায়গা নিয়ে খাঁড়াভাবে ল্যান্ড করতে পারে সেভাবে করে তৈরি করা। এটি ২০.৩ ফুট দৈর্ঘ্য এবং প্রস্থ ১৮.৭ ফুট। এয়ারক্রাফটটির বডি হেলিকপ্টারের মতো। বডির দু’পাশে দুই সেট পাখা আছে। মোটরসাইকেল হেলমেটের মতো দেখতে একটি কক্ষে গাড়িটি শুধু একজন যাত্রী পরিবহন করতে পারবে।

ভাহানা প্রজেক্টের নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যাক লোভারিং বলেন, মাত্র দু’বছর আগে স্বনিয়ন্ত্রিত এয়ারক্রাফটটির একটি স্কেচ করা হয়। প্রথম ফ্লাইট সফলভাবে সম্পন্ন করার মাধ্যমে তা বাস্তবে রূপ নিলো।

প্রযুক্তি এবং প্রোটোটাইপের পরিবর্তন করে ভাহানাকে আরও শক্তিশালী ও ব্যবহার উপযোগী করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। যাতে জনবহুল শহরের বহুতল ভবনের ছাদ থেকে ও যাত্রী তুলতে পারে তাদের উড়ুক্কু গাড়ি।

২০২০ সালের মধ্যেই এটি বাজারজাতকরণ করতে পারবেন বলে জানান ভাহানা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।