টি-টোয়েন্টিতে ইতিহাস গড়লো অস্ট্রেলিয়া

খেলা
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

টি-টোয়েন্টিতে ইতিহাস গড়লো অস্ট্রেলিয়া


টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ইতিহাস গড়লো অস্ট্রেলিয়া। আজ নিউজিল্যান্ডের দেয়া ২৪৪ রানের লক্ষ তাড়া করে ৭ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটের সহজ জয় কুড়ায় অস্ট্রেলিয়ানরা। এ নিয়ে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে সর্বাধিক রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড গড়লো অজিরা। এর আগে টি-টোয়েন্টিতে সর্বাধিক রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড ছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ২০১৫‘র জানুয়ারিতে জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার দেয়া ২৫৩ রান তাড়া করে জয় নজির গড়েছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এদিন নিউজিল্যান্ডের দেয়া ২৪৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ৮.৩ ওভারে ১২১ রান যোগ গড়েন ডেভিড ওয়ার্নার ও ডি আর্চি শর্ট।
পরে ওয়ার্নারকে আউট করে এ জুটি ভাঙেন কিউই স্পিনার ইশ সৌদি। ২৪ বলে ৫ ছক্কা ও ৪ চারে ৫৯ রানের এ ঝড়ো ইনিংস খেলেন ওয়ার্নার। পরে ক্রিস লিন ১৮ ও আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ১৪ বলে ৩১ রান করে ফিরলেও অন্য প্রান্তে ব্যাট হাতে অবিচল ছিলেন শর্ট। দলীয় ২১৭ রানের মাথায় ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৭৬ রান করে বোল্টের বলে আউট হন তিনি। ৪৪ বলে ৩ ছক্কা ও ৮ চারে এ ইনিংস খেলেন শর্ট। শেষ পর্যন্ত অ্যারন ফিঞ্চ ১৪ বলে অপরাজিত ৩৬ রানের সুবাদে ইতিহাসের রেকর্ড গড়া জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচসেরা হন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ডি আর্চি শর্ট। এর আগে টস জিতে মার্টিন গাপটিলের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ভর করে অস্ট্রেলিয়াকে নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেটে ২৪৩ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে এটা তাদের দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর। এর আগে জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও একই রান করেছিল কিউইরা। এদিন ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই মারমুখী খেলতে থাকেন দুই কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও কলিন মানরো। ওপেনিং জুটিতে মাত্র ৬৪ বলে ১৩২ রান করেন তারা। ইনিংসের ১১তম ওভারের মানরোকে আউট করে এ জুটি ভাঙেন পেসার এন্ড্রিও টাই। মানরো ৩৩ বলে ৬ ছক্কা ও ৬ চারে ৭৬ রানের ইনিংসটি খেলেন। পরে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়লেও নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং এক প্রান্তে আগলে রেখে সেঞ্চুরি তুলে নেন গাপটিল। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে এটা তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। পরে ইনিংসের ১৭তম ওভারের দলীয় ২১২ রানে মাথায় টাইয়ের বলে ব্যাক্তিগত ১০৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন তিনি। ৫৪ বলে ৯ ছক্কা ও ৬ চারে এ ঝড়ো ইনিংস খেলেন এ কিউই ওপেনার। তার আউটের পর মাত্র ৪ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২টি করে উইকেট নেন কেন রিচার্ডসন ও এন্ড্রিও টাই।